ঢাকা ০২:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গৌরীপুর গণপাঠাগারের আয়োজনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৬৩ তম জন্মবার্ষিকী পালন Logo স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ”এসো গৌরীপুর গড়ি”র প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন Logo গৌরীপুর এগ্রোভেট রিপ্রেজেন্টেটিভ এসোসিয়েশনের দোয়া ও ইফতার Logo মানবকল্যাণ ফোরামের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo গৌরীপুরে ‘স্বাধীনতা ৭১ ক্লাব’র শুভ উদ্বোধন। Logo গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী ওলামা লীগের ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন Logo জাতীয় কবি পরিষদ (জাকপ)’র বর্ষসেরা সম্মাননা পেলেন গৌরীপুরের ডাঃ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ Logo জাহাঙ্গীর হোসেন পাপ্পু’র কবিতা ‘ হে একুশে ফেব্রুয়ারি’ Logo মরণোত্তর একুশে পদক পেলেন গৌরীপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম হাতেম আলী মিয়া Logo প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান’র ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

বি. আর. শোয়েব’র কবিতা ”তুমি চাইলেই সব হতো”

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪ ১৫৩ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

চাইলেই সুন্দর একটা ঘর হতো।
দুই জোড়া হাত, ছোটো ছোটো দুইটা পা
বারান্দার এক পাশে তোমার পছন্দের ফুলগাছ
আর বিশাল ওঠোন জোড়ে পেয়ারা গাছের নিচে দুটো মুখোমুখি চেয়ার…

তুমি চাইলেই সব হতো।
অফিস শেষে বিরক্তিকর জ্যাম ভেঙে
এক পলক দেখার আশায় ছুটে চলা।
রাস্তার পাশের ফুচকার দোকানে তোমার পছন্দের ফুচকাতে ভাগাভাগি।
অলস দেহে বুকের উপর মাথা রেখে বলা ‘ভালোবাসি’।

ভাঙাগড়ার এই শহরে চাইলেই সম্পর্কে ফাটল ধরানো যায়, ভেঙে ফেলা যায় চোখে চোখ রেখে দেওয়া কথা।
স্বশব্দে বলা যায় ঘৃণা করি।
কিন্তু তা কি জানো- এতে কোনো মহত্ত্ব নেই,
বিজয় নেই, সাময়িক পৈশাচিক আনন্দ ছাড়া
দীর্ঘতর কোনো আনন্দ নেই।

তোমার রূপ আছে…
অনেক কামাতুর হাত তোমার দিকে এগিয়ে আসবে।
ছুঁয়ে দেখার আশায় কথার ছলচাতুরী খুঁজবে।
স্বপ্ন দেখাবে রাশিরাশি।
টাকা আছে – অজস্র বিবস্ত্র দেহ কাছে পাবে।
শরাব পেয়ালা হাতে নিয়ে নিজেকে হারাবে অন্যকোথাও। কিন্তু বিশ্বাস করো- রাত্রি যখন গাঢ় হবে
আর অলস মস্তিষ্ক নিয়ে যখন পাশে হাত রাখবে- তখন কেউ নেই। দিনশেষে তুমি একা, বড্ড একা।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

বি. আর. শোয়েব’র কবিতা ”তুমি চাইলেই সব হতো”

আপডেট সময় : ০৩:১৫:৪৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪

চাইলেই সুন্দর একটা ঘর হতো।
দুই জোড়া হাত, ছোটো ছোটো দুইটা পা
বারান্দার এক পাশে তোমার পছন্দের ফুলগাছ
আর বিশাল ওঠোন জোড়ে পেয়ারা গাছের নিচে দুটো মুখোমুখি চেয়ার…

তুমি চাইলেই সব হতো।
অফিস শেষে বিরক্তিকর জ্যাম ভেঙে
এক পলক দেখার আশায় ছুটে চলা।
রাস্তার পাশের ফুচকার দোকানে তোমার পছন্দের ফুচকাতে ভাগাভাগি।
অলস দেহে বুকের উপর মাথা রেখে বলা ‘ভালোবাসি’।

ভাঙাগড়ার এই শহরে চাইলেই সম্পর্কে ফাটল ধরানো যায়, ভেঙে ফেলা যায় চোখে চোখ রেখে দেওয়া কথা।
স্বশব্দে বলা যায় ঘৃণা করি।
কিন্তু তা কি জানো- এতে কোনো মহত্ত্ব নেই,
বিজয় নেই, সাময়িক পৈশাচিক আনন্দ ছাড়া
দীর্ঘতর কোনো আনন্দ নেই।

তোমার রূপ আছে…
অনেক কামাতুর হাত তোমার দিকে এগিয়ে আসবে।
ছুঁয়ে দেখার আশায় কথার ছলচাতুরী খুঁজবে।
স্বপ্ন দেখাবে রাশিরাশি।
টাকা আছে – অজস্র বিবস্ত্র দেহ কাছে পাবে।
শরাব পেয়ালা হাতে নিয়ে নিজেকে হারাবে অন্যকোথাও। কিন্তু বিশ্বাস করো- রাত্রি যখন গাঢ় হবে
আর অলস মস্তিষ্ক নিয়ে যখন পাশে হাত রাখবে- তখন কেউ নেই। দিনশেষে তুমি একা, বড্ড একা।