ঢাকা ১১:৪৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সংবাদ শিরোনাম :
Logo গৌরীপুর এগ্রোভেট রিপ্রেজেন্টেটিভ এসোসিয়েশনের দোয়া ও ইফতার Logo মানবকল্যাণ ফোরামের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত Logo গৌরীপুরে ‘স্বাধীনতা ৭১ ক্লাব’র শুভ উদ্বোধন। Logo গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী ওলামা লীগের ইউনিয়ন কমিটির অনুমোদন Logo জাতীয় কবি পরিষদ (জাকপ)’র বর্ষসেরা সম্মাননা পেলেন গৌরীপুরের ডাঃ মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ Logo জাহাঙ্গীর হোসেন পাপ্পু’র কবিতা ‘ হে একুশে ফেব্রুয়ারি’ Logo মরণোত্তর একুশে পদক পেলেন গৌরীপুরের বীর মুক্তিযোদ্ধা মরহুম হাতেম আলী মিয়া Logo প্রধান শিক্ষক হাফিজুর রহমান’র ৪র্থ মৃত্যুবার্ষিকী আজ Logo ময়মনসিংহ র‍্যাবের অভিযানে ৫০ জন চাঁদাবাজ গ্রেফতার Logo গৌরীপুরে ডিজিটাল চা বিক্রেতার ব্যতিক্রমী আয়োজনে জাতীয় গ্রন্থাগার দিবস পালন

জাহাঙ্গীর হোসেন পাপ্পু’র কবিতা ‘ হে একুশে ফেব্রুয়ারি’

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৮:৪৭:১৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫ বার পড়া হয়েছে
আজকের জার্নাল অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি শহীদ মিনারের স্তম্ভ,
জীবন্ত এক প্রতিমূর্তি।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি ছেলে হারা মায়ের বুকফাটা আর্তনাদ,
ভাই হারা বোনের করুন আকুতি।
তুমি প্রেয়সীর শত স্বপ্ন ক্ষতবিক্ষত করা,
ভাই হারা ভাইয়ের চূর্ণবিচূর্ণ পাজর।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি প্রভাতফেরির ফুটন্ত ফুল,
পূর্ব দিগন্তে জ্বলে উঠা রবি।
তুমি স্নিগ্ধ সতেজ সুরভি ছড়ানো,
শহীদের রক্তে কেনা এক টুকরো স্বপ্ন।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি মাতৃভাষা দিবস ফেব্রুয়ারির একুশ,
শহীদদের আত্মদানের স্বীকৃতি স্বরূপ।
তুমি বাংলা ভাষার অলংকার,
বিশ্ব দরবারে দিয়ে গেলে সম্মান।
আমরা পেলাম গর্বের ভাষা মায়ের ভাষা বাংলা।
তাই বারংবার শতবার নতজানু এই চিত্তে,
কুর্ণিশ করি শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও সম্মানে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

জাহাঙ্গীর হোসেন পাপ্পু’র কবিতা ‘ হে একুশে ফেব্রুয়ারি’

আপডেট সময় : ০৮:৪৭:১৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি শহীদ মিনারের স্তম্ভ,
জীবন্ত এক প্রতিমূর্তি।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি ছেলে হারা মায়ের বুকফাটা আর্তনাদ,
ভাই হারা বোনের করুন আকুতি।
তুমি প্রেয়সীর শত স্বপ্ন ক্ষতবিক্ষত করা,
ভাই হারা ভাইয়ের চূর্ণবিচূর্ণ পাজর।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি প্রভাতফেরির ফুটন্ত ফুল,
পূর্ব দিগন্তে জ্বলে উঠা রবি।
তুমি স্নিগ্ধ সতেজ সুরভি ছড়ানো,
শহীদের রক্তে কেনা এক টুকরো স্বপ্ন।

হে একুশে ফেব্রুয়ারি,
তুমি মাতৃভাষা দিবস ফেব্রুয়ারির একুশ,
শহীদদের আত্মদানের স্বীকৃতি স্বরূপ।
তুমি বাংলা ভাষার অলংকার,
বিশ্ব দরবারে দিয়ে গেলে সম্মান।
আমরা পেলাম গর্বের ভাষা মায়ের ভাষা বাংলা।
তাই বারংবার শতবার নতজানু এই চিত্তে,
কুর্ণিশ করি শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা ও সম্মানে।